দক্ষিন আফ্রিকার বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার জয় ৮ উইকেটে

সুপার এইটের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে ২ উইকেটের হারের পর আজ অস্ট্রেলিয়ার কাছেও ৮ উইকেটে হেরে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ফলে এখন সেমিফাইনালের টিকিট পাওয়াটা বেশ অনিশ্চিতই হয়ে পড়েছে প্রোটিয়াদের। অন্যদিকে সুপার এইটে টানা দুইটি জয় দিয়ে শেষ চারে যাওয়ার কাজটা অনেকখানিই এগিয়ে রাখল অস্ট্রেলিয়া। বিগত তিনটি ম্যাচের মতো আজও অস্ট্রেলিয়ার জয়ের নায়ক শেন ওয়াটসন। প্রথমে বল হাতে দুইটি উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতেও ৪৭ বলে ৭০ রানের ম্যাচজয়ী ইনিংস খেলেছেন এই অলরাউন্ডার।
জয়ের জন্য ১৪৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোভাবে করতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ ওভারে মাত্র ১০ রানের মাথায় সাজঘরে ফিরেছিলেন ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। তবে দ্বিতীয় উইকেটে ৯৯ রানের জুটি গড়ে অস্ট্রেলিয়াকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যান শেন ওয়াটসন ও মাইক হাসি। ১৪তম ওভারে এই জুটি ভেঙ্গে ওয়াটসনকে সাজঘরে ফেরান রবিন পিটারসেন। কিন্তু তাতেও জয় তুলে আনতে কোন সমস্যা হয়নি অসি ব্যাটসম্যানদের। বাকি কাজটা নির্বিঘ্নেই সেরে ফেলেন মাইক হাসি ও ক্যামেরন হোয়াইট। ৩৭ বলে ৪৫ রান করে শেষপর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন হাসি। ক্যামেরন হোয়াইটের ব্যাট থেকে এসেছে ২১ রান।
ওয়াটসন ও মাইক হাসির ভালো ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার এই জয়ে বড় অবদান আছে দক্ষিণ আফ্রিকার বাজে ফিল্ডিংয়ের। ১১তম ওভারে শেন ওয়াটসনের একটি ক্যাচ তালুবন্দি করতে পারেননি ওয়েন প্রানেল। ওয়াটসন তখন ব্যাট করছিলেন ৫২ রান নিয়ে। ১৭তম ওভারে মাইক হাসিকে আউট করাটা যখন দক্ষিণ আফ্রিকার জয়ের জন্য খুবই জরুরী ছিল, সেইসময় একটা সহজ স্ট্যাম্পিং মিস করেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। এছাড়াও প্রোটিয়া ফিল্ডারদের হাত ফসকে বল সীমানার বাইরে চলে গেছে, এমন ঘটনা ঘটেছে অন্তত দুইবার।

ব্লগার

পোষ্টটি লিখেছেন: ব্লগার

এই ব্লগে 25 টি পোষ্ট লিখেছেন .

সম্পাদক জনকন্ঠ ব্লগ।

ব্লগার

About ব্লগার

সম্পাদক জনকন্ঠ ব্লগ।
Tagged , , . Bookmark the permalink.

Comments are closed.