নিউইয়র্কে হাসিনা-সিন থেইন বৈঠক : রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে নীতিগত সম্মতি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে সাম্প্রতিক মিয়ানমার দাঙ্গায় উদ্বাস্তু রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ফিরিয়ে নিতে নীতিগতভাবে সম্মত হয়েছেন মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট থেইন সেইন।

সংশ্লিষ্ট একটি দায়িত্বশীল সূত্র বাংলানিউজকে এ তথ্য জানিয়েছে।

সূত্রটি জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে প্রেসিডেন্ট থেইন সেইন আশ্রিতদের একটি সঠিক তালিকা তৈরির ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এ ব্যাপারে একমত হয়েছেন বলে সূত্রটি জানায়। প্রধানমন্ত্রী ঢাকায় ফিরেই যথা শিগগির সম্ভব এ বিষয়ে যথাযথ উদ্যোগ নেবেন বলেও জানা গেছে।

গত শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রেসিডেন্ট থেইন সেইনের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সুত্র আরো জানায়, স্বচ্ছতার সঙ্গে রোহিঙ্গাদের গ্রহণযোগ্য  তালিকা তৈরির বিষয়ে নির্দেশনা নিয়ে ঐকমত্যের মাধ্যমে  দু’দেশের উচ্চ পর্যায়ের আলোচনাও খুব শিগগিরই শুরু হওয়ার বিষয়ে উভয় পক্ষই আশাবাদী।

প্রেসিডেন্ট থেইন সেইন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যেকার দ্বিপাক্ষিক বৈঠকটি আশানুরূপ ভাবেই ফলপ্রসু হয়েছে বলেও সূত্রটি জানায়।

সূত্রটি আরো জানায়, জাতিসংঘ প্রেসিডেন্ট থেইন সেইন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যেকার দ্বিপাক্ষিক বৈঠককে উৎসাহিত করেছে এবং অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে পর্যবেক্ষণ করেছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ দু’দেশের মধ্যে একটি ফলপ্রসু সমাধান চায় বলেও কূটনৈতিক এ সূত্রটি জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগেও প্রায় ৩০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিলেও তাদের ফেরত পাঠানোর বিষয়টি এখনও ঝুলে আছে। এসব রোহিঙ্গাদেরকে ফেরত নেওয়ার ব্যাপারে এতোদিন পর্যন্ত মিয়ানমার কোনো ইতিবাচক উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। উপরন্তু সম্প্রতি মিয়ানমারে নতুন করে রাখাইন-রোহিঙ্গা দাঙ্গার ফলে নারী ও শিশুসহ হাজার হাজার রোহিঙ্গা নিজদেশ ছেড়ে বিভিন্ন উপায়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে এবং এখনও প্রবেশের চেষ্টা করছে।

ব্লগার

পোষ্টটি লিখেছেন: ব্লগার

এই ব্লগে 25 টি পোষ্ট লিখেছেন .

সম্পাদক জনকন্ঠ ব্লগ।

ব্লগার

About ব্লগার

সম্পাদক জনকন্ঠ ব্লগ।
Tagged , . Bookmark the permalink.

Comments are closed.